জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন-২০২০

জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন-২০২০

কোভিড ১৯ সংকটের মধ্যেও জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন-২০২০ যাত্রা অব্যহত ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন পরিচালিত ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় বাস্তবায়িত (ঢাকা উত্তর সিটি কর্পারেশন, দক্ষিণ সিটি সিটি কর্পারেশন, কুমিল্লা সিটি কর্পারেশন এবং রাজশাহী সিটি কর্পারেশন) এলায়ায় ৪ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে পক্ষকালব্যাপী জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন। ক্যাম্পেইনের কার্যক্রম চলবে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পারেশন বাস্তবায়িত ও ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন পরিচালিত ডিএনসিস পিএ -৩ এলাকায় মিরপুর মাতৃসদনে ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পারেশনর প্রধাণ নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত সচিব) জনাব মো: সেলিম রেজা, এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেঃ জেনাঃ মোঃ মোমিনুর রহমান মামুন, উপ-প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা লে: কর্ণেল মোঃ গোলাম মোস্তফা সারওয়ার আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব সালেহা বিনতে্ সিরাজসহ ডিএনসিস উদ্ধর্তন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের পরিচালক স্বাস্থ্য ও ওয়াশ সেক্টর জনাব ইকবাল মাসুদ, প্রকল্প ব্যবস্থাপক ডা: নায়লা পাভিনসহ প্রকল্পের কর্মকর্মাবৃন্দ।

ভিটামিন-এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মাধ্যমে শিশুর অন্ধত্ব প্রতিরোধ, দেহের স্বাভাবিক বৃদ্ধি নিশ্চিত হয়। এছাড়া সকল ধরনের মৃত্যুর হার ২৪ শতাংশ, হামজনিত মৃত্যুহার ৫০ শতাংশ এবং ডায়রিয়াজনিত মৃত্যুহার ৩০ শতাংশ কমায় ।

এই সময়ে নির্ধারিত টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে পর্যায়ক্রমে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী শিশুদের একটি নীল রঙের এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের একটি লাল রঙের উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ভিটামিন-এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

কোভিড-১৯ পেক্ষাপটে অভিভাবকরা অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরে সাবান-পানি দিয়ে হাত ধুয়ে শিশুদের ভিটামিন-এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর জন্য কেন্দ্রে নিয়ে আসবেন।

Please like and share us: