Addiction Management and Integrated Care (AMIC), the tobacco, drugs and HIV prevention institution of Dhaka Ahsania Mission (DAM), is a widely acclaimed initiative in Bangladesh.
Web Mail | Useful Link | | | |

“মাদকাসক্তি চিকিৎসায় মনোচিকিৎসকের ভূমিকা ও করণীয়” বিষয়ক সেমিনার

“মাদকাসক্তি চিকিৎসায় মনোচিকিৎসকের ভূমিকা ও করণীয়” বিষয়ক সেমিনার

১৫ ফেব্রুয়ারী (শনিবার) আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের আয়োজনে মনোচিকিৎসকদের নিয়ে “বর্তমান প্রেক্ষাপটে মাদকাসক্তি চিকিৎসায় মনোচিকিৎসকের ভূমিকা ও করণীয়” শীর্ষক সেমিনার রাজধানী লালমাটিয়া টাইমস স্কয়ার রেস্টুরেন্ট এন্ড পার্টি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের কাউন্সেলর ফাইরোজ জিহান জানান, বাংলাদেশ জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য জরিপ ২০১৮-১৯ পরিসংখ্যানে দেখা যায় প্রায় ১৭% (প্রায় সোয়া দুই কোটি) প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ (১৬.৭% পুরুষ ও ১৬% নারী) মানসিক রোগে আক্রান্ত এবং শিশু কিশোরদের মধ্যে প্রায় ১৪% শিশু কিশোর মানসিক সমস্যায় ভুগছে।

তিনি আরো জানান, আহ্ছানিয়া মিশন নারী মাদকাসক্তি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন কেন্দ্র কর্তৃক একটি জরিপে পাওয়া গেছে বর্তমানে ৩৭৭ জন নারী রোগীর মাঝে ১৭৪ জন নারী দীর্ঘ দিনের মাদক নির্ভরশীলতার কারনে মানসিক রোগে আক্রান্ত হয়ে পরে এবং ২৪ জন নারী মানসিক রোগের কারনে মাদক নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে। শুধুমাত্র মাদকাসক্তি সমস্যার কারনে চিকিৎসা নিয়েছে ৫৪ জন নারী এবং শুধুমাত্র মানসিক রোগের কারনে ৬০ জন নারী চিকিৎসা নিয়েছে। এবং ৩৭৭ জন নারীর মাঝে ৪৭ জন নারী র্পূবে মানসকি রোগরে চিকিৎসা নিয়েছে।

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সিটিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক ড. হেলাল উদ্দিন আহমেদ সভাপতির বক্তব্যে বলেন শিশুর শৈশব থেকেই তার মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করতে হবে, তবেই সে তার সকল ভাল খারাপ বিষয়গুলো যেমন মাদকের মতো ভায়াবহ বিষয়গুলো কে প্রতিরোধ নিজে থেকেই করতে শিখবে। এছাড়াও মানসিক সমস্যার ওষুধ খাওয়া নিয়ে অভিভাবকদের মাঝে সচেতনতা তৈরি করতে হবে কাজ করতে হবে

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের অবসরপ্রাপ্ত রেসিডেন্সিয়াল সাইক্রিয়াটিস আক্তারুজ্জামান সেলিম উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য সেক্টরের পরিচালক ইকবাল মাসুদ। সেমিনারে বক্তব্য প্রদান করেন জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সিটিটিউটের সহকারী অধ্যাপক ডা. সাইফুন নাহার সুমি,বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এর কনসালটেন্ট ডা এস এম আতিকুর রহমান, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের রেসিডেন্সিয়াল সাইক্রিয়াটিস ডা মোঃ রাহানুল ইসলাম। এছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মনোচিকিৎসকগণ এবং মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রের নেটওর্য়াক সংযোগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহাবুদ্দিন চৌধুরীসহ অন্যান্য প্রতিনিধিগন উপস্থিত ছিলেন।

Please like and share us: