Addiction Management and Integrated Care (AMIC), the tobacco, drugs and HIV prevention institution of Dhaka Ahsania Mission (DAM), is a widely acclaimed initiative in Bangladesh.
Web Mail | Useful Link | | | |

তামাকবিরোধী ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে একাধিক বিজ্ঞাপন ধংসসহ জড়িমানা আদায়


তামাকজাত দ্রব্যের বিজ্ঞাপন প্রচারে মা ইলেক্টট্রিক দোকানকে (২০,০০০/-) বিশ হাজার টাকা জড়িমানা অদায়।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন অঞ্চল -১ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপ-সচিব মোঃ মোস্তফা কামাল মজুমদার এর নেতৃত্বে এবং শাহবাগ থানা পুলিশ এর সহায়তায় ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, রবিবার, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়। তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ আইন অনুসারে তামাকজাত দ্রব্যের সকল ধরনের বিজ্ঞাপন প্রচার প্রচারনা নিষিদ্ধ। উল্লেখ্য যে, তামাক কোম্পানীগুলো তামাকজাত দ্রব্যের অধিক উৎপাদন ও মুনাফা লাভের আশায় তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন ভঙ্গ করে যুবসমাজকে ধূমপানে আকৃষ্ট করার লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত অভিনব কৌশলে পাবলিক প্লেসসহ বিভিন্ন স্থানে বিজ্ঞাপন প্রচার করে যাচ্ছে।

তামাক কোম্পানীর এই ধরনের কূটকৌশলকে প্রতিহত করার লক্ষ্যে সার্বিক বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে অঞ্চল-১ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপ-সচিব মোঃ মোস্তফা কামাল মজুমদার চাঁনখারপুল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, নীলক্ষেত এবং নিউমার্কেটসহ একাধিক এলাকায় তামাকজাত দ্রব্য বিক্রয়কারী ছোট বড় মাঝারি যে সকল দোকানে তামাকজাত দ্রব্যের বিজ্ঞাপন রয়েছে তাদের আইন অনুসারে জড়িমানা আদায় এবং সকল ধরনের অবৈধ বিজ্ঞান ধ্বংস করেন। বিশেষ করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকার সিয়াম রেস্তোরাকে (১০০০/-) এক হাজার টাকা জরিমানা করেন ধূমপানমুক্ত সাইনেজ না প্রদর্শণ করার কারনে এবং অপর দিকে বিএটিবি এর বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য সিমান্ত স্কয়ার এর ৩নং গেটের নিকটে মা ইলেক্টট্রিক দোকান কে (২০,০০০/-) বিশ হাজার টাকা জড়িমানা আদায় ও বিজ্ঞাপন ধংস করেন। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় সহায়তায় ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল -১ এর স্বাস্থ্য পরিদর্শক জনাব মাহমুদুল আহসান আনসারী এবং ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের কর্মকর্তা উম্মে জান্নাত, মাসুদ রানা ও অদুত রহমান উপস্থিত ছিলেন।

Please like and share us: